রবিবার

কুঋণ সঞ্চিতি কি - বিস্তারিত

কুঋণ বা অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি বলতে কি বোঝায়


এখানে যা থাকছে---

  • কুঋণ সঞ্চিতি কি
  • অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি কাকে বলে
  • অনাদায়ী দেনা সঞ্চিতি বলতে কি বোঝায়
  • কুঋণ সঞ্চিতির জাবেদা

কুঋণ সঞ্চিতি কি, অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি কাকে বলে, অনাদায়ী দেনা সঞ্চিতি বলতে কি বোঝায়, কুঋণ সঞ্চিতির জাবেদা
কুঋণ সঞ্চিতি

হিসাববিজ্ঞানে আয়ের সাথে ব্যয়ের সমন্বয় সাধনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানের প্রকৃত আর্থিক অবস্থা বিশ্লেষণ করা হয়। মুনাফার্জনের জন্য যে ব্যয় সংঘটিত হয় তাকে মুনাফা জনিত ব্যয় বলে। আয় ব্যয়ের ভারসাম্য রক্ষার জন্য হিসাববিজ্ঞানে আয় ব্যয়ের সমন্বয় সাধন বা Matching Concept অতিব জরুরী। অন্যদিকে বহুবিধ হিসাবের মাঝে আয়ের সাথে ব্যয়ের সমন্বয় সাধন কল্পে আর্থিক ঝুকি মোকাবেলায় কুঋণ সঞ্চিতি হিসাববিজ্ঞানের অন্যতম একটি আলচ্য বিষয়। আমাদের আজকের আলোচনা কুঋণ সঞ্চিতি নিয়ে। 



সঞ্চিতি বলতে কি বোঝায় বা সঞ্চিতি কিঃ

সাধারণ অর্থে সঞ্চিতি অর্থ সঞ্চয় করা। অর্থাৎ ভবিষ্যতে কিছু পাওয়ার আশায় বা ভবিষ্যতের কোনো অনুমান ভিত্তিক ক্ষতি মোকাবেলার জন্য বর্তমানে আমরা যা গচ্ছিত বা সংরক্ষণ করে রাখি তাকে সঞ্চয় বা সঞ্চিতি বলে। 



অনাদায়ী পাওনা কিঃ

আমরা যাদের কাছে টাকা পাবো তাদের আমরা দেনাদার বলি কারণ তারা আমাদের কাছে দায়বদ্ধ বা দেনা রয়েছে। অনেক কারনে অনেক সময় দেনাদারদের নিকট থেকে পাওনা টাকা আদায় করা সম্ভব হয় না দেনাদারদের নিকট থেকে আদায় হবে না এমন টাকার পরিমাণ কে হিসাববিজ্ঞানে অনাদায়ী পাওনা বা কুঋণ বলে। অনাদায়ী পাওনা যেহেতু দেনাদার দের কাছ থেকে পাওয়া যাবে না এমন টাকা সেহেতু অনাদায়ী পাওনা কে অনাদায়ী দেনা বলা যেতে পারে। [কুঋণ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন >>>]



কুঋণ সঞ্চিতি কি বা কাকে বলেঃ

কুঋণ সঞ্চিতি আর অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি (Bad Debt Reserve) একি জিনিস। অনাদায়ী পাওনা অর্থাৎ আদায় হবে না এমন টাকার জন্য প্রতিষ্ঠান যে ক্ষতির সম্মুখীন হয় তা ভবিষ্যতে মোকাবেলার জন্য যে সঞ্চয় করা হয় তাকে অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি বা কুঋণ সঞ্চিতি বলে। বছরের পর বছর ধরে অনাদায়ী পাওনা হতে থাকলে প্রতিষ্ঠান এক সময় ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে। প্রতিষ্ঠান যাতে ভবিষ্যতে ক্ষতির সম্মুখীন না হয় এই লক্ষ্যে ক্ষতি মোকাবেলার জন্য প্রতি বছর প্রতিষ্ঠান যে পরিমাণ মুনাফা বা লাভ অর্জন করে তা সম্পূর্ণ রূপে মালিক কে না দিয়ে অর্থাৎ মালিকানাস্বত্ব  বৃদ্ধি না করে তা থেকে কিছু অর্থ বা টাকা অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি বা কুঋণ সঞ্চিতি নামে একটি ফান্ড বা হিসাব করে কেটে রাখা হয় বা গচ্ছিত করে রাখা হয়। মালিক কে না দিয়ে অনাদায়ী পাওনার ক্ষতি মোকাবেলায় যে পরিমাণ অর্থ মুনাফা থেকে কেটে বা সরিয়ে সঞ্চয় করে রাখা হয় তাকে অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি বা কুঋণ সঞ্চিতি বলে। দেনাদার দের নিকট থেকে পাওনা টাকা আদায় হবে না ধরে তা মোকাবেলায় মুনাফার অংশ কেটে সঞ্চিতি করা হয় বলে অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি কে অনাদায়ী দেনা সঞ্চিতি ও বলা হয়ে থাকে। অর্থাৎ অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি, অনাদায়ী দেনা সঞ্চিতি ও কুঋণ সঞ্চিতি একি জিনিস এবং একি জিনিসের তিনটি নাম মাত্র।



কুঋণ সঞ্চিতি বা অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি কেন করা হয়ঃ

প্রতিষ্ঠান যদি বছর শেষে অর্জিত মুনাফা থেকে অনাদায়ী দেনা বা অনাদায়ী পাওনা বা কুঋণ জনিত ব্যয় মোকাবেলায় সঞ্চয় বা সঞ্চিতি করে না রাখে তবে নানা প্রকার অর্থনৈতিক সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে। তাই ভবিষ্যতে যাতে প্রতিষ্ঠান অনাদায়ী পাওনা বা কুঋণ জনিত ক্ষতি মোকাবেলা করতে পারে সে জন্য কিছু টাকা সঞ্চয় করে রাখে। বর্তমানে যদি অনাদায়ী পাওনা মোকাবেলার জন্য সঞ্চিতি করে না রাখা হয় তবে ভবিষ্যতে প্রতিষ্ঠান অনেক বড় সমস্যারল সম্মুখীন হয়। নিম্নোক্ত কারণ গুলোর জন্য অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি বা কুঋণ সঞ্চিতি করা হয়-

  • ১. অনাদায়ী পাওনা বা কুঋণ জনিত ক্ষতি মোকাবেলার জন্য সঞ্চিতি করে না রাখলে ভবিষ্যতে বিশাল পরিমাণে যখন অনাদায়ী পাওনা বা কুঋণ সংঘটিত হবে তখন অর্থ সংকট দেখা দিলে ব্যয় মোকাবেলা করে প্রতিষ্ঠান টিকিয়ে রাখা সম্ভব হয় না।
  • ২. অনাদায়ী বা কুঋণ সঞ্চিতি করে না রাখলে প্রতিষ্ঠানের অনাদায়ী দেনা জনিত ব্যয় মোকাবেলা করা সম্ভব হয় না।
  • ৩. অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি বা কুঋণ সঞ্চিতি প্রতিষ্ঠানের এমন একিটি আর্থিক ফান্ড বা সঞ্চয় যা শুধু অনাদায়ী পাওনা বা অনাদায়ী দেনা বা কুঋণ জনিত ক্ষতি মোকাবেলা নয়, প্রতিষ্ঠানের যে কোনো আর্থিক সংকটে এই ফান্ড বা সঞ্চয় থেকে অর্থের যোগান পাওয়া সম্ভব হয়।
  • ৪. যে কোনো সঞ্চিতি প্রতিষ্ঠানের ভবিষ্যতে আর্থিক সংকট মোকাবেলার সহায়ক তাই কুঋণ সঞ্চিতি প্রতিষ্ঠানের আর্থিক সংকট মোকাবেলার অন্যতম হাতিয়ার।
  • ৫. মূলধন সংরক্ষণ করে রাখার জন্য  কুঋণ সঞ্চিতি অন্যতম একটি ব্যবস্থা, মুনাফার কিছু অংশ সঞ্চিতি করে না রাখলে প্রতিষ্ঠান মালিক আয় বা মুনাফার টাকা সম্পূর্ণ বা পুরোপুরিভাবে খরচ করে ফেলতে পারে, তাই মুনাফার কিছু অংশ ভবিষ্যতে ব্যবহার করার জন্যে কুঋণ সঞ্চিতি নামে গচ্ছিত রাখা আর্থিক ঝুকি মোকাবেলায় সহায়ক।
  • ৬. হিসাববিজ্ঞানে প্রকৃত সমন্বয় করার জন্য কুঋণ সঞ্চিতি করা প্রয়োজন, দেনাদারদের যে অংশ আদায় হচ্ছে না তা গাণিতিক ভাবে দেখানো ও ভবিষ্যতে অনাদায়ী পাওনা মোকাবেলার জন্য কুঋণ সঞ্চিতি হিসাব তৈরি করা হয়।
  • ৭. ভবিষ্যতে দেনাদার দের নিকট থেকে কি পরিমাণ অর্থ বা টাকা আদায় করা সম্ভব হবে বা কি পরিমাণে অর্থ আদায় করা সম্ভব হবে না সেটা জানার জন্য অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি বা কুঋণ সঞ্চিতি করা প্রয়োজন।
  • ৮. অনাদায়ী পাওনা বা কুঋণ প্রতিষ্ঠানের একটি ক্ষতি, কুঋণ সঞ্চিতি বা অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি করে মুনাফা থেকে টাকা সরিয়ে না রাখলে অনাদায়ী দেনা জনিত ক্ষতি বা ব্যয়ের পরিমাণ বাদ না দেখিয়ে মুনাফা ধরা হয় ফলে প্রতিষ্ঠানের প্রকৃত মুনাফার পরিমাণ নিরূপণ করা সম্ভব হয় না, তাই সঠিক মুনাফা বা লাভের পরিমাণ সম্পর্কে জানতে অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি বা কুঋণ সঞ্চিতি করা প্রয়োজন। 
  • ৯. পন্য বিক্রির মাধ্যমে বাকি থাকা সকল টাকা পুরোপুরি কখনো আদায় করা সম্ভব হয় না। তাই দেনাদারদের সঠিক পরিমাণ জানার জন্য অনুমানের ভিত্তিতে অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি বা কুঋণ সঞ্চিতি করা প্রয়োজন। দেনাদার দের যত টাকা প্রতিবছর আদায় হয় না সেটা অনুমান করে দেনাদার থেকে বাদ দিয়ে দেখানোর মাধ্যমে প্রকৃত দেনাদারদের পরিমাণ জানা সম্ভব হয়, অনাদায়ী দেনা সঞ্চিতি বা কুঋণ সঞ্চিতির সমপরিমাণ টাকা দেনাদারদের নিকট থেকে প্রতিবছর আদায় হবে না বলে ধরার মাধ্যমে কুঋণ সঞ্চিতির টাকা দেনাদারদের থেকে বাদ দিয়ে প্রকৃত দেনাদারদের পরিমাণ নির্ণয় করা যায়।



কুঋণ সঞ্চিতি হিসাবের ডেবিট ক্রেডিট নির্ণয় করার নিয়ম বা পদ্ধতিঃ

সনাতন ও আধুনিক পদ্ধতিতে কুঋণ সঞ্চিতি হিসাব কে মালিকের অংশ বিবেচনা করা হয় যা প্রতিষ্ঠানের এক ধরনের দায়। যেহেতু কুঋণ সঞ্চিতি সন্দেহজনিত অনাদায়ী পাওনা বা সন্দেহজনিত কুঋণ এর বিপরীতে মুনাফার অংশ কেটে করা হয় এবং সরাসরি মালিকানা স্বত্বের সাথে জড়িত নয় সেহেতু চলতি দায় হিসাবে ধরা হয়। আমরা জানি যে দায় বৃদ্ধি পেলে ক্রেডিট হয়। সুতারং অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি বা কুঋণ সঞ্চিতি- দায় বৃদ্ধি- ক্রেডিট।



কুঋণ সঞ্চিতি খতিয়ানের কোন দিকে উদৃত্ত প্রদান করেঃ

কুঋণ সঞ্চিতি একধরণের দায় এবং কুঋণ সঞ্চিতির মাধ্যমে দায় বৃদ্ধি পায়। সুতারং কুঋণ সঞ্চিতি বা সন্দেহজনিত অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতির ব্যালেন্স বা উদৃত্ত সবসময় ক্রেডিট হয়।



কুঋণ সঞ্চিতি রেওয়ামিলের কোন দিকে বসেঃ

খতিয়ানে কুঋণ সঞ্চিতির ক্রেডিট উদৃত্ত হয় বলে কুঋণ সঞ্চিতি রেওয়ামিলের ক্রেডিট দিকে বা ক্রেডিট পাশে বসে।



কুঋণ সঞ্চিতির জাবেদা করার নিয়মঃ

সনাতন পদ্ধতিতে কুঋণ সঞ্চিতির নিম্নোক্ত জাবেদা বা হিসাব দাখিলা করা হয়-

লাভ-লোকসান হিসাব----ডেবিট

কুঋণ সঞ্চিতি বা অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি হিসাব----ক্রেডিট

(কারণঃ আয় হ্রাস ও দায় বৃদ্ধি)

আধুনিক বা সমীকরণ বা আমেরিকান পদ্ধতিতে কুঋণ সঞ্চিতিকে নিম্নোক্তভাবে জাবেদায় বা হিসাবে দাখিলা করা হয়-

কুঋণ বা অনাদায়ী পাওনা হিসাব---ডেবিট

কুঋণ সঞ্চিতি বা অনাদায়ী পাওনা সঞ্চিতি  হিসাব----ক্রেডিট

(কারণঃ ব্যয় বৃদ্ধি ও দায় বৃদ্ধি)



কুঋণ সঞ্চিতি চুড়ান্ত হিসাবে দাখিল করার নিয়মঃ

লাভ-লোকসান বা আয় বিবরণী ও আর্থিক বিবরণী তে কুঋণ সঞ্চিতি নিম্নোক্ত ভাবে লিপিবদ্ধ করে সমন্বয় সাধন করে দেখানো হয়-


সনাতন পদ্ধতিতে,

লাভলোকসান হিসাবে ডেবিট দিকে দেখিয়ে নীট লাভের পরিমাণ কমানো হয় এবং সম্পত্তি বা সম্পদ হিসাবে দেনাদার থেকে বাদ দিয়ে দেনাদারদের পরিমাণ কমিয়ে দেখানো হয়।


আধুনিক বা আমেরিকান পদ্ধতিতে,

আয় বিবরণীতে অনাদায়ী দেনার সাথে যোগ করে দেখানো হয় এবং আর্থিক বিবরণীতে দেনাদার থেকে বাদ দিয়ে অথবা দায়ের পাশে চলতি দায়ের ঘরে লিপিপদ্ধ করে দেখানো হয়।




কমেন্ট করুন এবং আমাদের সাথেই থাকুন।


নিচের বক্সে কমেন্ট করুন। আপনার প্রতিটি কমেন্ট আমাদের নিকট খুবি গুরুত্বপূর্ণ।

আপনার কমেন্টের উত্তর আমরা যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব দিতে চেষ্টা করবো। আমাদের সাথেই থাকুন।
1timeschool.com
EmoticonEmoticon